বৈদ্যের বাজার ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রউফ এর বিরুদ্ধে ফেক আইডিতে অপপ্রচার চালনাকারী জনতার হাতে আটক

Uncategorized অর্থনীতি আন্তর্জাতিক প্রচ্ছদ রাজনীতি শিক্ষা সোনার বাংলা

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বিভিন্ন ফেক আইডি ব্যবহার করে উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. আব্দুর রউফ ও তার ছেলের বিরুদ্ধে বেশ কিছুদিন ধরে মিথ্যা ও আপত্তিকর অপপ্রচার চালানোয় শান্ত নামে একজনকে আটক করেছে স্থানীয় লোকজন।
শান্ত জেলার আড়াইহাজার উপজেলার খাককান্দা গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে।

পরে তাকে বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদের এনে তার স্বজনদের সামনে রেখে ফেসবুকে ফেক আইডির মাধ্যমে চেয়ারম্যান ডা. আব্দুর রউফ ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে মানহানিকর অপপ্রচার চালানোর বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে শান্ত নিজেকে নির্দোষ দাবি করে বলেন, তার মোবাইল ও মোবাইল নাম্বার ব্যবহার করে তার মামা সোনারগাঁও উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের মামরকপুর গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে সানাউল্লাহ বেপারী “বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদ” নামে একটি ফেক আইডি খুলে, ঐ ফেক আইডির মাধ্যমে চেয়ারম্যান ডা. আব্দুর রউফ ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে আপত্তিকর অপপ্রচার চালাচ্ছে। শান্ত জানান, গত ৩ এপ্রিল সোনারগাঁওয়ে হেফাজত তান্ডব ও উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় ভাংচুর মামলার এজাহার ভুক্ত আসামি সানাউল্লাহ গ্রেফতারের ভয়ে তাদের বাড়িতে পাঁচদিন আত্মগোপন করে থাকে। পরে সেখান থেকে অন্যত্র চলে যায়।

স্থানীয়রা জানান, সানাউল্লাহ বেপারীর বিভিন্ন অপকর্মে অতিষ্ঠ হয়ে কয়েকমাস আগে উত্তম মাধ্যম দেয়। পরে বিষয়টি বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন ডা. আব্দুর রউফ স্থানীয় পঞ্চায়েত কমিটি ও এলাকার সম্মানিত ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে সালিশ বৈঠকের মাধ্যমে সর্বসম্মতিক্রমে সঠিক ও গ্রহণযোগ্য মীমাংসা দেন। তখন সানাউল্লাহ বেপারী সহ তার পরিবার সে রায়ে সন্তুষ্ট প্রকাশ করেন। কিন্তু সালিশ মীমাংসার একদিন পর থেকেই সে ফেসবুকে বিভিন্ন নামে ফেক আইডি খুলে চেয়ারম্যান ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক এলাকাবাসী
জানান, সানাউল্লাহ বেপারী নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন “আমরা করোনা যোদ্ধা’র” টিম লিডার হয়ে কাজ করতেন। সেই সুবাদে সানাউল্লাহ নিজেকে এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার ভাগিনা পরিচয় দিয়ে এলাকায় মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি, জুয়ার আসর বসানো সহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে বেড়াচ্ছে। সানাউল্লাহ বেপারীর এসব কর্মকাণ্ডে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হলেও এমপির ভাগিনা পরিচয় দেওয়ায় তার ভয়ে কেউ মুখ খোলার সাহস পায় না। তার কারনে এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার সুনাম ক্ষুন্ন করেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সানাউল্লাহ বেপারীর পিতা তোফাজ্জল হোসেন সংবাদ কর্মীদের বলেন, শালিস বৈঠকে তার ছেলে সানাউল্লাহ সকলের সামনে বলেছেন যে সে আর কখনো কারো সঙ্গে অসদাচরণ ঝগড়া-বিবাদ সহ কোন প্রকার অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়াবেন না। তার কিছুদিন পরই আবারো সে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড লিপ্ত হয়। তিনি বলেন, আমার ছেলে সানাউল্লাহ আমার কথা শুনে না সে এখন আমার অবাধ্য সন্তান। চেয়ারম্যান ডা. আব্দুর রউফ ও
পঞ্চায়েত কমিটি তার ছেলের বিরুদ্ধে যে সিদ্ধান্ত নিবেন সে সিদ্ধান্তকে তিনি সম্মান জানাবেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. আব্দুর রউফ বলেন, সমাজে আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ফেসবুকের মাধ্যমে মানবাধিকার যে অপপ্রচার চালিয়ে তা অত্যন্ত ঘৃণিত কাজ। এলাকার কিছু কুচক্রী মহলের লোকজন আমার সুনাম ক্ষুণ্ন করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এবং মিথ্যে অপপ্রচারকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *