সোহাগ রনির বিরুদ্ধে উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেনের সংবাদ সম্মেলন

Uncategorized অর্থনীতি আন্তর্জাতিক রাজনীতি

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সোনারগাঁও উপজেলা চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেনের অনুমতি না নিয়ে আগাম নির্বাচনী প্রচারণায় পোস্টারে তার ছবি ব্যবহার করার বিরুদ্ধে তিনি এই সংবাদ সম্মেলন করেন।

রবিবার বিকালে উপজেলার মোগরাপাড়া বাজারে উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশারফ হোসেন লিখিত বক্তব্যে বলেন, আপনারা জানেন আমি দীর্ঘ দুই মাস যাবৎ শারীরিক অসুস্থতার কারণে এলাকায় আসতে পারি নাই। এর মাধ্যমে মোগরাপাড়া ইউনিয়ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আমার ছবি এবং আমার নাম ব্যবহার করে সমগ্র মোগরাপাড়া ইউনিয়ন বাসীর মধ্যে একটি বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতি তৈরি করেছে যা অত্যন্ত দুঃখজনক ও নিন্দনীয়। আমি সুস্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই আমার পরিবার ঐতিহ্যবাহী ও নির্বাচনমুখী পরিবার। আমার পূর্ব পুরুষরাও জনগণের কল্যাণে নিজেদের উৎসর্গ করে গেছেন। আমার পরিবার থেকে কে নির্বাচন করবে তা আমাদের পরিবার ও দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে সিদ্ধান্ত নিবো। আমাদের পরিবার ও দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে আলাপ আলোচনা করে আমার চাচা এডভোকেট সাজেদ আলী মিয়া মোক্তার সাহেবের ছেলে আমার আপন চাচাতো ভাই আরিফ মাসুদ বাবু কে তৃতীয় বারের মতো মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পুনঃরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত করার জন্য মোগরাপাড়া ইউনিয়ন বাসীকে অনুরোধ করা হইলো। প্রেস নোট পড়া শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, কেউ যদি উপযুক্ত না হয়ে নিজেকে ওভারল যোগ্য মনে করে তাহলে সে পাগলের প্রলাপ বকে। সোহাগ আমাদেরই হাতে গড়া ছেলে তবে তার সাথে যে উশৃংখল ছেলে পেলে চলাচল করে তাদের দশজনের মধ্যে আটজনই নেশাখোড় ও উশৃঙ্খল ছেলে পেলে। আমার কথা যদি বিশ্বাস না হয় তাহলে আপনারা পরিক্ষা করে দেখেন। আমাকে জিজ্ঞেস না করে পোস্টারে আমার ছবি ও নাম ব্যবহার করার কান জানতে চেয়ে আমি ব্যক্তিগতভাবে তাকে ফোন করে জানতে চাইলে সে সঠিক কোনো জবাব দিতে পারেনি। আমি একটি ভুল করেছি সোহাগ ও তার পিতা তোতা মেম্বার সজল নামে এক ছেলেকে আমার সিলেক্ট করেছে। তোতা মেম্বার ও সোহাগ তার জন্য আমার সমর্থন চেয়ে অনুরোধ করে। তখন আমি তাদের বলেছি, আমি একজন উপজেলা চেয়ারম্যান হয় একজন মেম্বারকে কি করে সমর্থন দেই । তখন সে বলে আপনিও তো মোগরাপাড়ার। মোগরাপাড়ার লোকেরাই তো আপনাকে এখানে বসিয়েছে। পারে আমি একটু অন্যরকম হয়ে বলেছি ঠিক আছে। এটাকে কেন্দ্র করে গিয়ে সে এই ঘটনার সৃষ্টি করেছে। এসময় তিনি মোগরাপাড়া ইউনিয়ন বাসীর কাছে অনুরোধ করেন কোনো খারাপ লোকের কাছে এই দায়িত্ব জেন না দেন। তিনি মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবুর ভূয়সি প্রশংসা করেন।

উল্লেখ্য নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আগাম প্রচার হিসেবে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সোহাগ রনি উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশারফ হোসেনের ছবি ও নাম ব্যবহার করে আসছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *