আড়াইহাজারে ফলজ ও বনজ গাছের ১৫০ টি চারা কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা. .. থানায় অভিযোগ

Uncategorized অর্থনীতি আন্তর্জাতিক প্রচ্ছদ

মামুন আহম্মেদ জয় আড়াইহাজার প্রতিনিধিঃ-নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়ায় ফলজ ও বনজ গাছের ১৫০টি চারা কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। এবং এ বিষয়ে ইউসুফ আহমেদ থানায় অভিযোগ করেছেন।

আড়াইজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নে ইজারকান্দি গ্রামে নিজ ফার্মের পাশে ইউসুফ আহমেদ গাছ লাগান পরে সামাজিক প্রতিহিংসার কারনে গাছ কেটেছে বলে দাবি করেন তিনি , এসময় তিনি আরো বলেন, যারা পূর্বে আমার এই বাগানের চারা গাছ কেটে ছিল তারাই এই কাজ করেছে, এবং এসব গাছ কাটার সঙ্গে পতিহিংসার সম্পৃক্ততা রয়েছে ।

স্থানীয় লোকজনের সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালে ওই এলাকায় ফার্মের টিলা ভূমিতে আম, লিচু,ডাব,করুই গাছ, লেবুসহ বিভিন্ন ফলজ ও বনজ চারা রোপণ করেন ইউসুফ আহমেদ। বাগান করার পর থেকে গতকাল পর্যন্ত দুই বার চারা কেটে ফেলে দুর্বৃত্তরা। ইউসুফ আহমেদ ( ৫৬ ) পিতা- মৃত মমতাজ উদ্দিন আহমেদ পেশায় তিনি ব্যবসায়ী।

ইউসুফ আহমেদ বলেন, ‘শখের বসে আমি আমার ফার্মের চার একর টিলা ভূমিতে ২০১৭ সালে এই ফলজ ও বনজ চারা রোপন করি। ঢাকা থেকে এনে ৩০০বেশি আমগাছের চারা সঙ্গে লিচু ও লেবুসহ অন্যান্য ফলজ ও বনজ চারা রোপণ করা হয়।

কিন্তু দুর্বৃত্তের হাত থেকে বাগানটি রক্ষা করতে পারছি না। গতকাল শুক্রবারদিবাগত রাতে ২৫০ টি গাছের চারা কেটে ফেলা হয়েছে। এর আগের দুইবারও কয়েক শ আমগাছের চারা কাটা হয়েছিল।’ তিনি বলেন, ‘আমার সঙ্গে শত্রুতা করুক, গাছের সঙ্গে কিসের শত্রুতা।’ ১৯ / ১১ / ২০২০ ইং এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেন ইউসুফ আহমেদ।

আড়াইহাজার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে
ফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।

আড়াইহাজার থানার (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, বাগানের চারা কেটে ফেলেছে, এ ধরনের অভিযোগ পেয়েছি । আমার আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
তদন্তে ওই এলাকায় লোক পাঠানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *